মহাকোলাহল

পূর্বরাতের ভয়াবহ মৃত্যুভাবনা পকেটে নিয়ে ঘুরছিলাম রাতে ৷ দেখি, মানুষের কতো বিচিত্র জীবন; সানাই বাজাচ্ছে বিয়ের ৷ বলুন তো, জীবনের ফলাফল কী? টোপর পরে বন্ধুদের সাথে একটা ছেলে হাসছে ৷ টোপর পরে বন্ধুদের সাথে একটা মেয়ে কাঁদছে ৷ বৃক্ষহীনতার ফলাফল জানা আছে আপনার? আমি মাতাল হলেই যতো দোষ! এতোগুলো কাগজের পিঠে চেপে বসেছি তো বাড়ি যাবো বলেই ৷ আমি কি তুচ্ছ ফড়িঙ? কোথাও কোনো অন্ধকার নেই কেন এতো রাতেও বুঝিনা কী যে হলো মানুষগুলোর ৷ পথে পথে পথঘাটে কোনো তীব্র নারীগাছ নেই কেন? আমার খুব দৌড়াতে ইচ্ছে করে ৷ মাথায় ইতোমধ্যে দৌড় শুরু হয়েছে, শিরা উপশিরা পাগল হয়ে যাচ্ছে; আমি স্থির হচ্ছি; এভরিওয়ান ইজ অা ক্রিমিন্যাল! কতো বৈধ অবৈধ প্যাকেট–বোতল শূন্য থেকে ভেসে শূন্যে চলে যাচ্ছে ৷ আমার যেন কাকে ডাকতে ইচ্ছে করছে গোপনে ৷ মুঠোভর্তি তেঁতুল আর নুন নিয়ে আমার যেন কোথায় যেতে ইচ্ছে করছে! কেন আমার আবার জন্ম হলো পৃথিবীতে, কেউ কি জানে? তোমার বাড়ি তো বহুদূর— তবে আপেলের ঘ্রাণ ভেসে আসছে কোত্থেকে? তুমি কি আমার পাশে — আছো — কাছাকাছি কোথাও, বৃষ্টির আড়ালে ৷ এই দিন তো পুরোটাই উষ্ণ ছিলো আজ, কেন এভাবে বৃষ্টি এলো?

৩টি মন্তব্য:

  1. "এভরিওয়ান ইজ ক্রিমিন্যাল! কতো বৈধ অবৈধ প্যাকেট–বোতল শূন্য থেকে ভেসে শূন্যে চলে যাচ্ছে ৷ আমার যেন কাকে ডাকতে ইচ্ছে করছে গোপনে ৷"

    -সত্য, চমৎকার উপলব্ধি...সাম্য'দা

    উত্তরমুছুন